ডা.এস. জামান পলাশ

জামান হোমিও হল

মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট, নীচ তলা শপথ চত্বর, কালীবাড়ী মোড, চাঁদপুর।

ই-মেইলঃ dr.zaman.polash@gmail.com

মোবাইল

01711-943435,
01670- 908547,
01919 - 943435

শিরোনাম
চিকিৎসা যেখানে শেষ সেখানেই আমার শুরু ” ক্যান্সারসহ যে কোনো জটিল কঠিন রোগের চিকিৎসা অপারেশান ছাড়া করা হয়।
হোমিওপ্যাথি কি?

“হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা একটি বিজ্ঞান সম্মত আধুনিক চিকিৎসা ব্যাবস্থা”

হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা ক্ষেত্রে নিউটনের তৃতীয় সূত্র প্রত্যেক ক্রিয়াই সমান বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে এ সূত্রের ভিত্তিতে এ চিকিৎসা ব্যাবস্থা। রোগ ও ঔষধ দুটিই শক্তি। ঔষধ শক্তির ধর্ম হইলরোগ শক্তিকে আঘাত করা ও প্রতিহত করা। বৈজ্ঞানিক নিয়ম হইল Similar Repels অর্থ্যাৎ সদৃশ প্রতিহত করে। রোগ ও ঔষধ সদৃশ। প্রাকৃতিক রোগের বিরুদ্ধে ঔষধজ কৃত্রিম নিযুক্ত করা হইলে প্রাকৃতিক সদৃশ নীতিতে উভয়ের মধ্যে ক্রিয়া প্রতিক্রিয়া চলিতে থাকে।
নিউটনের তৃতীয সূত্র হইল প্রত্যেক ক্রিয়ার একটা সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে।
মহাত্মা হ্যানিমানের চিকিৎসা ব্যাবস্থায় বিশ্বজনীন প্রাকৃতিক আরোগ্য নীতি হইলঃSimilia Similibus Curenture- অর্থ্যাৎ সদৃশকে সদৃশ দ্বারা প্রতিহত করিয়া আরোগ্য সাধন করা। প্রথিবীতে যা কিছুই ঘটে তাহা ক্রিয়া ও প্রতিক্রিয়া ফলেই ঘটিয়া তাকে। কাজেই প্রতিটি ঘটনার দুইটি দিক আছে। একটি ক্রিয়া অপরটি প্রতিক্রিয়ার। ক্রিয়া যত বেগে দেওয়া হয়, প্রতিক্রিয়াও তত বেগে দেখা দিবে।এই ক্রিয়া দুই প্রকার। একটি শুভ অন্যটি অশুভ। রোগ মাত্রই অশুভ। এই অশুভ শক্তির ক্রিয়া হইতে বাঁচিবার জন্য দেহের ভিতরে অবস্থিত জীবনী শক্তি প্রতিক্রিয়া চালায়। রোগ শক্তির ক্রিয়া আর জীবনশক্তির প্রতিক্রিয়ার সমান হইলে আমরা সুস্থ হইনা। ইহাকে বলে সদৃশ সদৃশকে প্রতিহত করে। অন্যদিকে ক্রিয়া প্রতিক্রিয়ার চাইতে প্রবলতর হইলে আমরা সুস্থ হই। ইহাকে বলে সদৃশ আর্কষন করে। যখন অধিক শক্তিশালী ঔষধ দ্বারা ক্রিয়া প্রদর্শিত হয় তখন রোগের দিক হইতে প্রতিক্রিয়ার ভারসাম্যও অভাব ঘটে এবং রোগের বিপর্যয় ঘটে। ফলে আমরা আরোগ্য লাভ করি। তাই বলা হয় হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা ক্ষেত্রে নিউটনের গতির তৃতীয় সূত্রের সমতুল্য। অর্থ্যাৎ প্রত্যেক ক্রিয়ারই একটা সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে।